আমার সম্পর্কে জানুন

আমার পুরা নাম মুনজুরুল হাসান। সবার কাছে আমি হাসান নামেই পরিচিত। চার সদস্যার ছোট্ট একটি পরিবার আমাদের। আব্বু সরকারি চাকরি করছেন আম্মু সংসার সামলাচ্ছেন। ছোট ভাই পড়ালেখা নিয়ে ব্যস্ত। এই আমার পরিবার আর আমি এই পরিবারের বড়ছেলে।

আব্বুর সরকারি চাকরির সুবাদে আমাদের বিভিন্ন যায়গায় থাকতে হত। আব্বুর ট্রান্সফারের খবর শুনলেই মনটা অনেক খারাপ হয়ে যেত। এই এলাকাতে এতদিন থাকলাম কত পরিচিত মুখ, এদের কারো সাথে আর দেখা হবে না। একটা নতুন যায়গায় গিয়ে কিভাবে নিজেকে খাপ খাইয়ে নিতে হয়, কিভাবে নতুন কোন মানুষের সাথে পরিচিত হতে হয়, কিভাবে নতুন বন্ধু তৈরি করতে হয় এইগুলো খুব ছোটবেলা থেকেই শেখা। যে কোন নতুন কারো সাথে পরিচিত হওয়া এটা আমার একধরনের হবি অথবা অভ্যাস দুইটাই বলা যেতে পারে। এই অভ্যাসটা আসলে আব্বুর চাকরির সুবাদেই হয়েছে। স্কুলে যাওয়ার সময় আম্মু টিফিনেরর জন্য যে টাকাটা দিত রাস্তায় কোন বৃদ্ধ ভিক্ষুক দেখলে তাকে দিয়ে দিতাম। বাসায় এসে আম্মুকে বললে সে বলতো খুব ভালো করেছো আব্বু। সেই ছোটবেলা থেকেই কারো জন্য কিছু করতে পারলে ভালো লাগতো। সেই ভালোলাগাগুলো এখন কাজ করে।

আমি যদিও রসায়ন বিষয় নিয়ে অনার্স করেছি। কিন্তু আমার প্যাশনের যায়গা ছিল আইটি। অনার্স ২য় বর্ষ থেকে সিদ্ধান্ত নেই যে আমি পড়ালেখার পাশাপাশি আইটি বিষয়ক কাজ শিখবো। তাই দ্বিতীয় বর্ষ থেকেই একটা আইটি কোম্পানিতে পার্টটাইম চাকরি শুরুকরি। সেখান থেকেই আইটি লাইনের হাতেখড়ি। যেটা ছিল প্যাশন এখন সেটা প্রফেশন।